সেন্ট মার্টিনের “বর্ষা স্টোন” এর alতুজীবনের একটি বড় লাভ

মৌসুমী

মৌসুমী নামে সুপরিচিত আরিফা পারভীন জামান মৌসুমী বাংলাদেশের বিখ্যাত চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। ৩ নভেম্বর এই জনপ্রিয় নায়িকার জন্মদিন।

এই বিশেষ দিনে, কেউ মৌসুমির জীবনের একটি বড় অর্জন সম্পর্কে কথা বলতে পারেন, যা অনেক স্থানীয় পর্যটক বা চলচ্চিত্র ভক্তরা চলচ্চিত্র জীবনের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি হিসাবে বিবেচনা করে। ভক্তদের প্রশ্ন করা হয়, অভিনেতার জীবনে এতো কয়টি সাফল্য আসে!

তাঁর নামে একটি পাথর বাংলাদেশের দক্ষিণীতম প্রান্তে সমুদ্রের কেন্দ্রস্থলে একটি প্লট জমিতে চলচ্চিত্রের কেরিয়ারে সমস্ত মৌসুমীর কৃতিত্বকে ছাপিয়েছিল। সমুদ্রের গভীরে প্রবেশের আগে সেন্ট মার্টিন বাংলাদেশের একটি সুন্দর দ্বীপ। ছেরাদ্বীপ সেন্ট মার্টিন দ্বীপের অংশ। আমি বলতে চাইছি, নিম্ন জোয়ারে কেবল একটি দ্বীপ রয়েছে তবে উচ্চ জোয়ারে দ্বীপটি পৃথক হয়ে যায়। দ্বীপটিকে ছেড়দ্বীপ বলা হয় কারণ এটি জোয়ারের মাধ্যমে মূল সেন্ট মার্টিন থেকে পৃথক হয়ে যায়। সেই পরিবার ব্যতীত কেউ এই দ্বীপে বসতি স্থাপন করেননি। এখানে পাথরটির নামকরণ করা হয়েছে অভিনেত্রী মৌসুমীর নামে।

অনেক সিনেমার ভক্তদের মতে এটি মৌসুমির জীবনের সর্বোচ্চ চলচ্চিত্রের পুরস্কার। অস্কারের তালিকা দীর্ঘ হবে তবে মৌসুমী প্রস্তর কখনই বৃদ্ধ হবে না। বঙ্গোপসাগরের কেন্দ্রস্থল হু হু করে উঠবে, যদি না বঙ্গোপসাগরে কোনও ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ ছড়িয়ে পড়ে। সেন্ট মার্টিনের রুবি যতক্ষণ না কয়েক হাজার এবং কয়েক মিলিয়ন মানুষ এই দ্বীপটি পরিদর্শন করত এবং বর্ষা সম্পর্কে জানত। এটি সেন্টমার্টিনের ভক্ত বা পর্যটকদের একটি বিবৃতি।

দ্বীপের মূল আকর্ষণ প্রবাল প্রাচীর। জোয়ারের খেলায়, এই প্রবালগুলি সকালে বয়ে যায় এবং বিকেলে ভাসে। জোয়ারের খেলায় শেষ দেখা পাথরটিকে স্থানীয়রা বিখ্যাত নায়িকা মৌসুমী বলে ডাকে। মজার বিষয় হ’ল এই ছেঁড়া দ্বীপে একটি পরিবার রয়েছে এবং তাদের মেয়ের নামও মৌসুমী! তাঁর নামেই হয়তো সেই নামেই ডাকা হত!

স্থানীয়দের মতে, পাথরের নাম মৌসুমী। ১৯৯০ এর দশকে বাংলাদেশের বিখ্যাত চ্যাম্পিয়ন সালমান শাহকে নিয়ে মৌসুমী দ্বীপে এসেছিলেন। আন্টারে আন্টারে মুভিতে মুসুমে “এখানে দুজন লোক বিচ্ছিন্ন, ভালোবাসার জগতকেও সাজিয়েছে …” নামে একটি গান সহ নৃত্য ও গানে শোনান। তার পর থেকে সবাই এই পাথরটিকে “মৌসুমী পাথর” নামে চেনে!

READ  স্যামসাং গ্যালাক্সি এ 21 এস

১৯৮৩ সালের ৩ নভেম্বর মৌসুমীর জন্ম হয়েছিল। মুসুমে অভিনীত প্রথম সিনেমাটি ছিল রিসার্চশনস টু রিভাইরেশনস। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি মৌসুমী বেশ কয়েকটি ছোট নাটক ও বিজ্ঞাপনে হাজির হয়েছেন।

অন্তরে অন্তরে অভিনয় থেকে ফিরে আসার পরে ওমর সানিকে সম্মতি জানাতে শুরু করেন এবং পরে তাঁর প্রেমে পড়ে যান। 1995 সালের 2 শে আগস্ট তিনি ওমর সানিকে বিয়ে করেছিলেন। তাদের একটি ছেলে ফারদিন এবং এক মেয়ে ফয়জা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: 1831 ঘন্টা, 3 নভেম্বর 2020
OFB

বাংলাদেশ নিউজ ২৪.কম ডটকম দ্বারা প্রকাশিত / প্রকাশিত কোনও সংবাদ, তথ্য, ফটো, ফটোগ্রাফ, গ্রাফ, ভিডিও বা অডিও সামগ্রী কপিরাইট আইনে পূর্বের অনুমতি ব্যতীত ব্যবহার করা যাবে না।

Written By
More from Arzu Ashik

এবার এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না

কোভিড -১৯ এর প্রভাবের ফলস্বরূপ, এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষাগুলি ২০২০ সালে নেওয়া...
Read More

প্ৰত্যুত্তৰ দিয়ক

আপোনৰ ইমেইল ঠিকনা প্ৰকাশ কৰা নহ'ব । প্ৰয়োজনীয় ক্ষেত্ৰসমূহত *এৰে চিন দিয়া হৈছে