নীলা কিল: মিজান টুডে সহ দুই কমরেডের শুনানির জন্য প্রাক-বিচারের শুনানি

স্কুল ছাত্রী নীলা রায় এবং তার দুই অংশীদার সাকিব ও জয় হত্যার মূল আসামী মিজান আল-রহমানকে সাত দিনের জন্য কারাভোগ করা হয়েছিল। ছবি: সংগৃহীত

>

স্কুল ছাত্রী নীলা রায় এবং তার দুই অংশীদার সাকিব ও জয় হত্যার মূল আসামী মিজান আল-রহমানকে সাত দিনের জন্য কারাভোগ করা হয়েছিল। ছবি: সংগৃহীত

সাভারের স্কুল ছাত্র নেলা রায় হত্যা মামলার মূল আসামী মিজান আল-রহমান এবং তার দুই সহযোগী, সাকিব (২১) এবং জয় (২০) সাত দিন ধরে আটক ছিল। এদিকে তাদের Dhakaাকার চিফ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে আদালতের প্রসিকিউটর আনোয়ার আল-কবির এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আনোয়ার আল-কবির বলেছিলেন, “আসামির প্রাকট্রিয়াল ডিটেনশন অধিবেশন বৃহস্পতিবার বেলা তিনটার পরে গ্রেটার Dhakaাকার বিচারক রজব হাসানের আদালতে অনুষ্ঠিত হবে।”

শুক্রবার রাত সাড়ে দশটার দিকে সাভারের টিন্টুলগুরা ফেডারেশনের রাজভুলবাড়িয়ায় কর্নেল প্রিক্সের মাঠের কাছে অভিযান চালিয়ে পুলিশ মিজান আল-রহমানকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, দুই অংশীদার মিজান সাকিব ও জয়কেও গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। পরে দুজন হাজির হয়ে তাদের আটক করা হয়েছিল। Izাকা জেলা পুলিশ পরিদর্শক মারুফ হুসেন হোসেন সরদার মিজান আল-রহমানকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এখন পর্যন্ত মিজান ও তার বাবা-মা সহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে নেলা হত্যার অভিযোগে।

এর আগে আদালত মিজানের মা-বাবাকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছিল। গতকাল Dhakaাকার প্রথম বিচারপতি ফায়রোজ তাসনিম এ আদেশ জারি করেছেন। আদালত প্রসিকিউটর (পিপি) আনোয়ার কবির বাবোল এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মিজান আব্দুল রহমানের বাবা ও স্ত্রী সাভার ব্যাংক কলোনীতে থাকতেন। তবে নেলা হত্যার পরে রাষ্ট্রপতি মিজান আল-রহমানকে অভিযুক্ত করেন এবং তারাও আত্মগোপনে যায়।

আজ বিকেলে Dhakaাকা হাই ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আনোয়ার কবির বলেছিলেন, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সাফার থানার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) নির্মল চন্দ্র ঘোষ সাত দিনের প্রি-ট্রায়াল আটকের আবেদন করেছিলেন। অন্যদিকে তাদের আইনজীবীরা আসামির পক্ষে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক জামিনের আবেদন নাকচ করে প্রত্যেককে দু’দিনের প্রিটারিয়াল আটকের আদেশ দেন।

READ  বৃহস্পতিবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ছে কি না তা জানা যাবে

অতিরিক্ত র‌্যাব -৪ থানার পুলিশ পরিদর্শক জামালউদ্দিন আহমেদ জানান, আইটি-র সহায়তায় বৃহস্পতিবার রাতে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার চরগ্রাম থেকে আব্দুল রহমান ও নাজমুন নাহার সিদ্দিকীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার মানিকগংয়ে আরিশা থেকে মিজান রহমানের সহযোগী সেলিম বালায়ান নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তিনি সাভার পৌরসভার বালবাড়া জেলার বাসিন্দা।

এদিকে, সাফার দুর্নীতি দমন কমিশনের সেক্রেটারি-জেনারেল সালাহউদ্দিন খান নাইম, যা মিজান আল-রহমানের গ্রেপ্তারের আহ্বান জানিয়ে ২৩ টি সংস্থায় যোগ দিয়েছে, বলেছে যে এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আমাদের আন্দোলন চলবে। তিনি বলেন, “আমরা প্রধান সন্দেহভাজনদের গ্রেপ্তারে পুলিশের ভূমিকার স্বাগত জানাই।” এটি নিঃসন্দেহে শোকাহত পরিবারকে স্বস্তি দেবে। তবুও, আমাদের আন্দোলন হত্যার দোষীদের দ্রুত বিচার দাবিতে অব্যাহত থাকবে।

২০ সেপ্টেম্বর রাতে তিনি যখন হাসপাতালে যাচ্ছিলেন, তখন তিনি তার ভাই মিজান আল-রহমান চৌধুরী নীলা রায়কে (১৪), এসিড কমিউনিটি স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রের সামনে ছুরিকাঘাত করে।

Written By
More from Arzu

বসুন্ধরা গ্রুপ সহ কয়েকটি সংস্থার জন্য ঘোষণা: মাসে দুই হাজার। 967799 | কালকের কণ্ঠ

দেশের বসুন্ধরা গ্রুপ এবং আরও অনেক শিল্প পণ্য পরিবহনের সাথে জড়িত জাহাজ...
Read More

প্ৰত্যুত্তৰ দিয়ক

আপোনৰ ইমেইল ঠিকনা প্ৰকাশ কৰা নহ'ব । প্ৰয়োজনীয় ক্ষেত্ৰসমূহত *এৰে চিন দিয়া হৈছে