জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানোর পর ‍মুসলিম যুবক খুন

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :২৪ জুন ২০১৯, ৪:২৯ পূর্বাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 6 বার
জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানোর পর ‍মুসলিম যুবক খুন জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানোর পর ‍মুসলিম যুবক খুন

আসামের পর এ বার ঝাড়খণ্ড। জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানোর পর চোর ‘আখ্যা’ দিয়ে এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে খুন করল উন্মত্ত জনতা। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার আগে ১৮ ঘণ্টা ধরে বেধড়ক পেটানো হয় ওই যুবককে। জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য করা হয়। টাইমস অব ইন্ডিয়া।

২২ জুন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছে ২৪ বছরের তবরেজ আনসারি। ঝাড়খণ্ডের খারসাওয়ানে ঘটেছে এই ঘটনা। গণপিটুনির বহু ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক ব্যক্তি তবরেজকে একটি কাঠের লাঠি দিয়ে নৃশংসভাবে পেটাচ্ছেন। আক্রান্ত যুবক ছেড়ে দেওয়ার আকুতি নিয়ে হাত জোড় করলেও তাতে কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই ওই ব্যক্তির।

আর একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, জোর করে তবরেজকে বলানো হচ্ছে ‘জয় শ্রী রাম’ ও ‘জয় হনুমান’।

জানা গিয়েছে, ১৮ জুন তবরেজকে বেধড়ক পেটানোর পর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তখন থেকে সে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে ছিল। তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ২২ জুন তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পুনেতে দিনমজুরের কাজ করতেন তবরেজ। ঈদে পরিবারের সঙ্গে কাটাতে তিনি গ্রামে গিয়েছিলেন। সেই সময়ই তাঁর বিয়ের আয়োজন করেছিল পরিবার।

১৮ দুন তিনি দুই ব্যক্তির সঙ্গে জামশেদপুর রওনা দেন। ওই দু জন তাঁকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, তা বুঝতে পারেনি তবরেজ। বহু লোকজনের মধ্যে পড়ে গেলে ওই দু জন পালিয়ে যায়। আর মাঝখানে পড়ে যায় ছেলেটি।

ভিডিওতে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘তুই এই বাড়িতে ঢুকবি?’ ছেলেটি বলেন যে তিনি কিছু জানেন না। ওই দু জন তাঁকে নিয়ে গিয়েছে। তবে সেই কথা কেউ শুনতে চাননি।

এই ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত পাপ্পু মণ্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 + 12 =