১০০ জনের মধ্যে ৫৬ জনেরই মনোনয়ন আপিলে বৈধ

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩:২৭ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 20 বার
১০০ জনের মধ্যে ৫৬ জনেরই মনোনয়ন আপিলে বৈধ ১০০ জনের মধ্যে ৫৬ জনেরই মনোনয়ন আপিলে বৈধ

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলে দুপুর পৌনে দু্ইটা পর্যন্ত ১০০ জনের আপিল নিষ্পত্তি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এর মধ্যে ৫৬ জনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি ৪৪ জনের মধ্যে ৪০ জনের আপিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করায় তাদের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। চট্টগ্রাম-৫ আসনে বিএনপি নেতা মীর নাসির মনোনয়নপত্র বাতিলের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত দেয়া হয়নি। আর তিন জন অনুপস্থিত ছিলেন আপিল শুনানিতে। তাদের প্রার্থিতাও বাতিল করা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে চার নির্বাচন কমিশনার আপিল শুনানি নিচ্ছেন। সকাল ১০টায় শুরু হয় প্রথম দিনের এই আপিল শুনানি।

এদিন শুরুতেই প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন বগুড়া-৭ আসনে বিএনপির প্রার্থী মোর্শেদ মিল্টন, ঢাকা-২০ আসনে ধামরাই উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. তমিজ উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান, পটুয়াখালী-৩ আসনে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মাওলা রনি, ঝিনাইদহ-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী আব্দুল মজিদ ও ঢাকা-১ আসনে বিএনপি প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাক।

এরপর একে একে জামালপুর-৪ আসনে ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম, পটুয়াখালী-৩ আসনে মোহম্মদ শাহজাহান, পটুয়াখালী-১ আসনে মো. সুমন সন্যামত, মাদারিপুর-১ আসনে জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সিলেট-৩ আসনে আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী, জয়পুরহাট-১ আসনে ফজলুর রহমান, পাবনা-৩ আসনে হাসাদুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ-২ আসনে আবিদুর রহমান খান, সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে আয়নাল হক, গাজীপুর-২ আসনে মাহবুব আলম, গাজীপুর-২ আসনে জয়নাল আবেদীন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনে জেসমিন নূর বেবী, রংপুর-৪ আসনে মোস্তফা সেলিম, খুলনা-৬ আসনে এস এম শফিকুল আলম, হবিগঞ্জ-১ আসনে জুবায়ের আহমেদ, ময়মনসিংহ-৭ আসনে জয়নাল আবেদীন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে আবদুল্লাহ আল হেলাল, ঝিনাইদহ-৩ আসনে কামরুজ্জামান স্বাধীন, কুমিল্লা-৩ আসনে কে এম মুজিবুল হক, মানিকগঞ্জ-১ আসনে মো. তোজাম্মেল হক, সিলেট-৫ আসনে ফয়জুল মুনীর চৌধুরী, ময়মনসিংহ-৩ আসনে আহাম্মদ তায়েবুর রহমান, ঝিনাইদহ-৪ আসনে আব্দুল মান্নান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে সৈয়দ আনোয়ার আহাম্মদ লিটন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে মামুনুর রশিদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে আবু আসিফ, ঢাকা-১৪ আসনে জাকির হোসেন ও ময়মনসিংহ-২ আসনে মো. আবু বকর সিদ্দিক প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

অন্যদিকে, চাপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনে মো. শামসুল হুদা, চাপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে মো. তৈয়ব আলী, মাদারিপুর-৩ আসনে মো. আবদুল খালেক, দিনাজপুর-২ আসনে মোকারম হোসেন, দিনাজপুর-১ আসনে মো. পারভেজ হোসেন, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে এস এম খলিলুর রহমান, ফেনী-১ আসনে মিজানুর রহমান, কিশোরগঞ্জ-৩ আসনে ড. মিজানুল হক, ময়মনসিংহ-৪ আসনে আবু সাইদ মহিউদ্দিন, নেত্রকোনা-১ আসনে মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ-২ আসনে এমদাদুল হক, খুলনা-২ আসনে এস এম এরশাদুজ্জামান, নাটোর-১ আসনে বীরেন্দ্র নাথ সাহা, ঢাকা-১ আসনে আইয়ুব খান, বগুড়া-৩ আসনে আবদুল মুহিত, রাঙামাটি আসনে অমর কুমার দে, বগুড়া-৪ আসনে আশরাফুল হোসেন আলমের (হিরো আলম), হবিগঞ্জ-২ আসনে মো. জাকির হোসেন, ঢাকা-১৪ আসনে সাইফুদ্দিন আহমেদ, সাতক্ষীরা-১ আসনে এস এম মুজিবর রহমান, খাগড়াছড়ি আসনে আবদুল ওয়াদুদ ভুইয়া, ঝিনাইদহ-১ আসনে আবদুল ওয়াহাব, দিনাজপুর-৩ আসনে সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, পঞ্চগড়-১ আসনে মো. তৌহিদুল ইসলাম, বগুড়া-৬ আসনে এ কে এম মাহবুবুর রহমান, ফেনী-৩ আসনে হাসান আহমদ ও মৌলভীবাজার-২ আসনে মহিবুল কাদির চৌধুরীর আপিল গ্রহণ করা হয়নি। তাদের মনোনয়নপত্র চূড়ান্তভাবে বাতিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটা পর্যন্ত আপিল শুনানির পর বিকেল তিনটা থেকে আবারও শুরু হয় আপিল শুনানি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven − four =