ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের তান্ডব! কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ চায় সাধারন কর্মীরা

অথর
স্টাফ রিপোর্টার  ইবি
প্রকাশিত :২৩ অক্টোবর ২০১৮, ১২:১৪ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 692 বার
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের তান্ডব! কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ চায় সাধারন কর্মীরা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া--ছবি সংগৃহীত

 ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়াদ উত্তীর্ন ছাত্রলীগের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদক নিয়োগ বানিজ্য, টেন্ডারবাজির, মাদক সম্রাট, হল এ টর্চার সেল ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়েছে। ইবি প্রসংশা যখন আকাশচুব্বী, সেশনজট মুক্ত ক্যাম্পাস, উন্নয়নের জোয়ার, প্রগতিশীল কর্মকান্ড বাধাহীনভাবে চলছে ঠিক তখনেই ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করতে উঠেপড়ে লেগেছে শাহীন ও হালিম। আড়ালে তাদের অশুভ উদ্দেশ্য আছে বলে ক্যাম্পাসসূত্রে জানা গেছে। গত বছর প্রশাসন ও ছাত্রলীগের সভাপতি -সাধারণ সম্পাদক বৈঠক করে বেতন ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেয়। স্বাভাবিক ভাবেই তা বাস্তবায়িত হয়। ঐ সেশনের ছাত্ররা এখন ২য় সেমিস্টারে ভর্তি হয়ে ক্লাস করছে অথচ এক বছর পর হঠাৎ কোমলমতি ছাত্রদের মাঠে নামিয়ে অশুভ স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে শাহীন -হালিম। প্রতক্ষদর্শীরা জানান গত ১৪ অক্টোবর হতে শাহিন- হালিম ক্যাম্পাসে ত্রাস সৃষ্টি করেছে। আর সেই সুযোগ নিয়ে শিবির ঢুকে পড়েছে। যার ফল কোঠা ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের মতোই মোড় নিয়েছে। ছাত্রলীগের সাধারণ কর্মীরা ঘৃর্নাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে তাদের কর্মকান্ড।

এখন সময়ের দাবী এসেছে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপ। আাগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামীলীগের স্বার্থে ইবি ছাত্রলীগের বিষয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত নিতে হবে নইলে পাশ্ববর্তী এলাকার নির্বাচনে ব্যাপক প্রভাব পড়তে পারে বলে আওয়ামীপন্থি শিক্ষকরা মনে করেন। আন্দোলন সম্পর্ক প্রক্টর প্রফেসর মাহবুবর রহমান বলেন -ছাত্রদের যৌক্তিক দাবীর বিষয়ে প্রশাসন আন্তরিক তবে আমি এরকম অনিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন কখনো দেখিনি। কোমলমতি ছাত্রদের কেউ ব্যবহার করে অসৎ উদ্দেশ্য সাধনের চেষ্টা করলে তা হতে দেয়া হবে না। ভিসি প্রফেসর রাশীদ আসকারী বলেন- ছাত্রদের জন্য আমার দরজা খোলা। তারা নিয়মতান্ত্রিকভাবে আমার কাছে দাবী জানাতেই পারে কিন্তু সেটা এভাবে নয়। এতদিন পর ২য় সেমিস্টারে এসে তাদের টনক নড়ল কেন? এখানে আমি বিস্মিত! সাজানো বাগান সুরক্ষা করার দায়িত্ব সকলের।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =


আরও পড়ুন