আলু সরকারী মূল্যে এখনও পাওয়া যায় না – বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার, শেওড়াপাড়া, মিরপুর বারবাগ ও পীরেরবাগসহ বিভিন্ন অঞ্চল ঘুরে দেখা গেছে, খুচরা পর্যায়ে আলু ৪২ টাকা থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

কারওয়ান বাজার Dhakaাকার পাইকাররা একতরফা আলু (পাঁচ কেজি) ২২০ টাকায় বিক্রি করেন। অন্য কথায়, প্রতি কেজি দাম 44 টাকা।

এই আলুগুলি প্রতিবেশী খুচরা দোকানে 48 থেকে 48 টাকায় বিক্রি হয়।

কারওয়ান বাজারের পাইকার ডেলাওয়্যার হুসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, দাম কমানোর জন্য সরকারের চাপ থাকা সত্ত্বেও ডিলাররা দাম কমান বা করতে পারেনি।

“ব্যবসায় মন্দাও হ্রাস পেয়েছে। গত দুদিনে নতুন কোনও আলু কাফেলার বাজারে প্রবেশ করেনি। শেয়ার বিক্রি হয়নি।”

আলুর খুচরা মূল্য কেজিপ্রতি ৫০ টাকা বেড়ে যাওয়ার পরে, কৃষি বিপণন বিভাগ ৮ ই অক্টোবর পণ্যটি উৎপাদন ও সংরক্ষণের ব্যয় বিশ্লেষণ করে এবং কোল্ড স্টোরেজ স্তরে ২৩ টাকা, পাইকারি পর্যায়ে ২৫ টাকা এবং খুচরা স্তরে ৩০ টাকা নির্ধারণ করে।

তবে রাজশাহী জেলা থেকে Dhakaাকায় আলুর সরবরাহকারী হাজী সাইফ আল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এবার আলুর মজুদ খুব কম ছিল। উচ্চতর বাজারের চাহিদার কারণে endণদাতারা হার বাড়িয়েছেন।

“বিগত কয়েক বছরে আলু ব্যবসায়ের সময় অনেকে দেউলিয়া হয়ে গেছেন। তারা এবার ৪০ টাকারও কম আলু ছাড়তে চান না।”

কনজিউমার রাইটস প্রটেকশন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের জাতীয় প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছেন, সারা দেশে আলুর দাম কমতে কিছুটা সময় লাগবে।

“কারণ কিছু আলু ইতিমধ্যে খুব উচ্চ মূল্যে গুদাম থেকে বাজারে এসেছে। এটি কয়েক দিনের মধ্যে খুচরা বাজারকে প্রভাবিত করবে।”

তিনি দাবি করেন, শুক্রবার রাজধানীর কয়েকটি স্কোয়ারে অভিযান করতে গিয়ে ব্যবসায়ীরা প্রতি কেজি ৩০ কেজি আলু বিক্রি করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

READ  রণভীর সিং ন্যাশনাল কমার্শিয়াল ব্যাংকে ডিজিটাল তদন্তের সময় তাকে দীপিকা পাডুকোন-এ যোগদানের অনুমতি দেওয়ার জন্য বলেছিলেন
Written By
More from Arzu

স্কুল-কলেজের মধ্যে দু’দিনের সপ্তাহান্তে তৈরির আলোচনা – বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

জাতীয় পাঠ্যক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এ বিষয়ে মন্ত্রী ও সচিবদের মতামত...
Read More

প্ৰত্যুত্তৰ দিয়ক

আপোনৰ ইমেইল ঠিকনা প্ৰকাশ কৰা নহ'ব । প্ৰয়োজনীয় ক্ষেত্ৰসমূহত *এৰে চিন দিয়া হৈছে