প্রতিবাদের মুখে আল আকসা থেকে সরে গেল ইসরাইল

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১৩ মার্চ ২০১৯, ২:০৫ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 14 বার
প্রতিবাদের মুখে আল আকসা থেকে সরে গেল ইসরাইল প্রতিবাদের মুখে আল আকসা থেকে সরে গেল ইসরাইল

ফিলিস্তিনিদের প্রবল প্রতিবাদের মুখে আল আকসা থেকে সরে গিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। মঙ্গলবার সকাল থেকে ইসরাইলি পুলিশ মসজিদটির নিয়ন্ত্রণ নিলে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে ফিলিস্তিরা। প্রতিবাদে মসজিদের বিভিন্ন ফটকে দিনভর অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন তারা।

অব্যাহত বিক্ষোভের মুখে বুধবার সকালে আল আকসার ফটক খুলে দেয় ইসরাইল। বুধবার সকালে মসজিদে ঢুকে কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি ফজরের নামাজ আদায় করেন। মুসলমানদের প্রথম কেবলা মসজিদুল আকসাকে ঘিরে ফের উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে ফিলিস্তিনে।

ফিলিস্তিনের প্রভাবশালী গণমাধ্যম আল ওয়াতান জানিয়েছে, আল আকসা সংলগ্ন ইসরাইলি পুলিশ চৌকিতে মঙ্গলবার সকালে একজন দুর্বৃত্ত একটি বিস্ফোরকদ্রব্য ছুড়ে মারে। এতে এক ইসরাইলি পুলিশ আহত হয়। এর জের ধরে আল আকসার নিয়ন্ত্রণ নেয় ইসরাইলি পুলিশ। মসজিদের মূল ফটকসহ পুরো এলাকাটি ঘিরে রেখে মুসল্লিদের মসজিদে প্রবেশে বাধা দেয়া হয়। এমনকি জানাজার জন্য আনা মৃতদের খাটিয়াও প্রবেশ করানো যায়নি আল আকসা প্রাঙ্গণে।

প্রতিবাদে ফিলিস্তিনি মুসলমানরা বিক্ষোভ শুরু করলে তাদের ওপর চড়াও হয় ইসরাইলি পুলিশ। এ সময় মুসল্লিদের বেধড়ক লাটিচার্জ করা হয়। আহত হয় শতাধিক। গ্রেফতার করা হয় কয়েকজনকে। এ নিয়ে মঙ্গলবার দিনভরই উত্তেজনা চলে ফিলিস্তিনে। বিক্ষুদ্ধ মুসল্লিরা মসজিদ চত্বরে ঢুকতে না পেরে ফটকের সামনেই আসর, মাগরিব ও ইশার নামাজ আদায় করেন।

স্বাধীনতাকামী ফিলিস্তিনিদের অব্যাহত প্রতিবাদের মুখে বুধবার সকালে আল আকসার ফটক খুলে দেয় ইসরাইল। এ সময় হাজার হাজার মুসল্লি আল আকসায় ফজরের নামাজ আদায়। হামাস নেতা নাসির কওসের বরাতে আল ওয়াতান জানায়, অব্যাহত বিক্ষোভের মুখে বুধবার ফজরের আগেই ফটকের নিয়ন্ত্রণ ছেড়ে দিয়েছে ইসরাইল।

এ দিকে বুধবার সকালে আল আকসার খতিব ও ফিলিস্তিনের গ্রান্ড মুফতি শাইখ মোহাম্মদ হুসাইন শাইখ বলেছেন, ইসরাইলি পুলিশকে আল আকসায় আর সহ্য করা হবে না। মঙ্গলবার দিনব্যাপী আল আকসা অবরোধের জন্য ইসরাইলকে কঠিন হুশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, আল আকসা বিষয়ে আর কোনও ষড়যন্ত্র মেনে নেয়া হবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে  সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 1 =